অটুট থাকুক বৈশাখী সাজ

|রূপ-কেয়ার ডেস্ক|

rupcare_boishakhi saj c

আজ রাত পোহালেই বাঙালীর প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখ। এই দিনটিকে ঘিরে সবারই প্রস্তুতি প্রায় শেষ প্রান্তে। তবে আবহাওয়ার যে আবস্থা তাতে দিনটি কিভাবে পার করবেন সেই দু:শ্চিন্তাই সবার মাঝে। একফোঁটা বৃষ্টির জন্য হাহাকার করেও মনে হয়না আকাশ থেকে বারি বর্ষণ হবে। তবে ভ্যাপসা গরম আর তীব্র রোদ যাই হোক না কেন উৎসব তো আর থেমে থাকবে না। তাই নিজেকেই প্রকৃতির সাথে খাপ খাইয়ে নিতে হবে। বৈশাখী সাজে নিজেকে রাঙানোর আগে কিছু দিক মাথায় রাখলে, এই বৈরী আবহাওয়ায়ও আটুট থাকবে আপনার সৌন্দর্য।

rupcare_boishakhi saj4rupcare_boishakhi saj3

 আসুন দেখে নিই কিভবে বৈশাখের গরমেও সতেজ থাকবেন।

  • আপনি সাধারণত যেসব রূপচর্চা করে থাকেন, যেমন ফেসিয়াল, স্ক্রাব, ফেসমাস্ক, টোনিং ইত্যাদি আগের রাতেই করে রাখুন। এতে আপনার মুখের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি পাবে এবং আপনাকে ফ্রেশ দেখাবে।rupcare_boishakhi saj6
  • বৈশাখের দিন ঝলমলে চুল পেতে মেথি গুড়ার সাথে টক দই দিয়ে আগের রাতেই চুল কন্ডিশনিং করে রাখুন। পরদিন সকলে শ্যাম্পু করে ফেলুন, দেখবেন চুল ঝলমলে কোমল হয়ে গেছে।
  • আগের রাতেই সকল প্রসাধনী সামগ্রী যোগার করে হাতের কাছে রাখুন।
  • সকালে ঘুম থেকে উঠেই একটা শাওয়ার নিয়ে তৈরী হয়ে যান।
  • আপনার ত্বকের ধরণ অনুযায়ী ফাউন্ডেশন বা প্যান কেক ব্যবহার করুন। মনে রাখবে যেহেতু বাইরে তীব্র গরম তাই ফাউন্ডেশন বা প্যান কেক যাই ব্যবহার করবেন, সাথে অবশ্যই ফেস পাউডার ব্যবহার করতে হবে।
  • গলায়, ঘাড়ে, পিঠেও ফেস পাউডার ব্যবহার করতে পারেন, এতে ঘাম থেকে আপনার মেকআপ রক্ষা পাবে।
  • আপনার চোখের নিচের দিকে মেকআপের বেইজটা একটু বেশি রাখবেন, তা না হলে গরমে চোখের নিচে কালো ছোপ পরে যাবে।
  • চোখে ভালো ব্র্যান্ডের আই লাইনার বা কাজল ব্যবহার করুন, নতুবা ঘামে তা নষ্ট হয়ে যাবে।
  • এতো তীব্র রোদে ম্যাট লিপস্টিকই ব্যবহার করা ভালো, তাহলে আপনাকে মার্জিত দেখাবে।rupcare_boishakhi saj
  • গরমে স্বচ্ছন্দ বোধ করতে হলে চুল খোপা করুন বা বেধে রাখুন। খোপায় বেলী ফুলের মালা জড়িয়ে রাখতে পারেন।
  • দিনের বেলার সাজে শাড়ির সাথে কাঁচের চুড়িই ভালো মানায়। লাল সাদা মিলিয়ে দুহাতে চুড়ি পরতে পারেন।
  • সুন্দর কারুকাজ করা মাটির গহনা বৈশাখী সাজে আপনাকে করে তুলবে অনন্য। কপালে বড় লাল টিপ পরুন।
  • যেহেতু পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠান দিনের বেলায়, তাই আপনার সজ্জা রাতের মতো জমকালো হলে চলবেনা। হালকা সাজেই আপনার রুচিবোধ ও মার্জিত ভাব ফুটে উঠবে।
  • আর সব শেষে একটি রঙিন ছাতা ও এক বোতল পানি সাথে রাখুন, যা আপনার সতেজতা ধরে রাখতে সহায়তা করবে।

আশাকরি বৈশাখ উৎযাপনে আপনি ভাল ভাবেই প্রস্তুতি গ্রহন করেছেন। আপনার বৈশাখ কাটুক আনন্দ আর ভালবাসায় এই কামনায় সবাইকে নববর্ষের শুভেচ্ছা।