আমাকে কেন এইরকম ড্রেস পরানো হলো: আক্ষেপ নায়িকা মৌয়ের

rupcare_moumita mou

অন্তর জ্বালা ছবি দুই নায়িকানির্ভর ছবি। একজনকে উপরে উঠাতে হলে আরেকজনকে নিচে নামাতে হয়। এটাই ফিল্ম পলিটিক্স। এই ছবির একটি গান আমার জীবন শেষ করে দিল। এমন কথাই জানালেন অন্তর জ্বালা ছবির অন্যতম নায়িকা মৌমিতা মৌ।

গত শুক্রবার সারা দেশে মুক্তি পেয়েছে মালেক আফসারী পরিচালিত ছবি অন্তর জ্বালা। এতে জুটি হয়ে অভিনয় করেছেন জায়েদ খান- পরীমনি এবং জয় ও নতুন নায়িকা তাহমিনা ইসরাত মৌসুমী ওরফে মৌমিতা মৌ।

ছবিটিতে মধু কই কই বিষ খাওয়াইলা শিরোনামে একটি গান ইতোমধ্যে বেশ সমালোচিত হয়েছে। গানটি জয় ও মৌর লিপে দেখেছেন দর্শক।

এতে নায়িকার পোশাক ও পারফর্ম নিয়ে সিনে জগতে চলছে সমালোচনা। সেই সমালোচনা নিয়ে এবার মুখ খুললেন নায়িকা।

ফেসবুকে স্ট্যাটাসের মাধ্যমে তিনি জানান, “অন্তর জ্বালা” এই জ্বালা শুধু আমাকেই জ্বালিয়ে দিল। অনেক স্বপ্ন, অনেক আশা নিয়ে এই কাজটা করেছিলাম। অনেক বিশ্বাস এবং ভরসা করেছিলাম পরিচালকের ওপর।

তিনি আক্ষেপ করে বলেন, বিনিময়ে কী পেলাম? খারাপ সমালোচনা। একটা গান আমাকে শেষ করে দিল। আমার তো একটা পরিবার, ব্যক্তিগত জীবন, বন্ধুমহল আছে। তাদের কাছ থেকে আজ আমার কথা শুনতে হচ্ছে।

মৌ বলেন, দর্শক কী বলছে, সেটা আপনারাই ভালো জানেন। এটা দুই নায়িকানির্ভর ছবি। একজনকে উপরে উঠাতে হলে আরেকজনকে নিচে নামাতে হয়। এটাই ফিল্ম পলিটিক্স।

তিনি প্রশ্ন করে বলেন, এই ছবিতে এইরকম গান কি খুব বেশি জরুরি ছিল? কেন এইরকম একটা গান আমাকে দিয়ে করানো হলো? আজকে আমি যে প্রশ্নের সম্মুখীন হচ্ছি সেটার দায় কে নেবে?

মৌর ভাষায়, এই গানের শুটিংয়ের আগে আমাকে গান শোনানো এবং ড্রেস দেখানো হয়নি। কেন এইরকম ড্রেস আমাকে পরানো হলো? এই গানটাতে দর্শক কী পেল? আর আমি কী পেলাম?

তাহলে কেন এইরকম একটা গান দেয়া হলো? এই গানটার জন্য ক্ষতি যা হওয়ার আমারই হয়েছে। কী আর বলব? সবসময় ফিল্ম পলিটিক্স বলে একটা শব্দ শুনতাম। আজ হয়তো আমিই তার শিকার হলাম বলে তিনি উল্লেখ করেন।