এই গরমে চুলের যত্নে

|রূপ-কেয়ার ডেস্ক|

rupcare_sumhair1

ঋতু পরিবর্তনের সাথে সাথে আমাদের চুলের দিকে বিশেষ নজর দেয়া উচিত, কেননা গ্রীষ্মকালে ত্বক এবং চুল, সর্বোপরি আমাদের স্বভাবিক সৌন্দর্যের ব্যপক ক্ষতি সাধন হয়। সূর্যের ক্ষতিকারক রশ্মির কারণে চুল হয়ে পরে শুষ্ক, প্রাণহীন ও ভঙ্গুর। এই সমস্যাগুলো হয় যেসব কারণে তা হলো মাথার ত্বকে ঘাম জমে থাকা, সূর্যের অত্যাধিক তাপ এবং তার প্রভাবে বিভিন্ন প্রসানীতে থাকা উপাদানগুলোর রাসায়নিক বিক্রিয়া।

এজন্য এই সময়টাতে চুলের যত্নের দিকে একটু বেশি নজর দেয়া উচিত। যত্ন মানে যে বেশি বেশি প্রসাধনী ব্যবহার করা তা নয়। কিছু দিক মেনে চললেই খুব সহজেই গ্রীষ্মের ক্ষতির হাত থেকে চুলকে রক্ষা করা যায়। আসুন তাহলে জেনে নেয়া যাক।rupcare_sumhair4

• চুলকে সুর্যের ক্ষতিকারক রশ্মি থেকে এবং চারপাশের দূষণ থেকে মুক্ত রাখতে হবে। এজন্য বাইরে বেরোনোর সময় চুল স্কার্ফ দিয়ে ঢেকে অথবা ছাতা ব্যবহার করা যেতে পারে।
• প্রতিদিন শ্যাম্পু করা যাবেনা। এর ফলে চুলের প্রকৃতিক আর্দ্রতা নষ্ট হয়ে চুল রুক্ষ হয়ে যাবে।

• চুল ধোয়ার পর তোয়ালে দিয়ে হালকা করে চুলের পানি মুছে স্বাভাবিক ভাবে চুল শুকাতে হবে। হেয়ার ড্রাইয়ার ব্যবহার করা যাবেনা। যদিও ব্যবহার করতে হয় ড্রাইয়ারটি মাথার ত্বক থেকে দূরে রাখতে হবে, আর বেশিক্ষণ এক জায়গায় তাপ দেয়া যাবেনা।

rupcare_sumhair3

• যেসব শ্যাম্পু ও কন্ডিশনার চুলের আর্দ্রতা ধরে রাখে, সেগুলো ব্যবহার করতে হবে। এ সময় চুলে বেশি কেমিক্যাল যেমন হেয়ার কালার, ক্রিম ইত্যাদি ব্যবহার করা ঠিক নয়।

• সপ্তাহে অন্তত দুবার চুলে তেল দিতে হবে।

rupcare_sumhair2মাথার ত্বক ঘেমে গেলে একটা তোয়ালে দিয়ে আলতো করে মুছে নেবেন।

• সূর্যের তাপে ক্ষতিগ্রস্থ চুলকে পুণরোজ্জীবিত করতে মাসে দুইবার কোন হারবাল প্যাক ব্যবহার করতে পারেন।

• ৫-৬ সপ্তাহ পর পর ফেটে যাওয়া চুলের ডগা ছেঁটে রাখুন।

• খাবার সোডার সাথে একটু পানি মিশিয়ে চুলে ম্যাসাজ করতে পারেন। এতে চুলের এসিডিটি দূর হবে।

• প্রচুর পরিমাণ পানি পান করুন। এতে আপনার মাথার ত্বক সজীব থাকবে।

facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedin