এয়ারটেল “লাইফ আফটার থ্রিজি” বিজ্ঞাপনের ব্যাপক সমালোচনা

|গসিপ ডেস্ক|

rupcare_airtel 3g ad

ব্যাপক সমালোচনার মুখে পরেছে এয়ারটেল থ্রিজি প্যাকেজের নতুন টেলিভিশন বিজ্ঞাপনটি। এ নিয়ে ফেসবুক ব্যবহারকারীদের মধ্যে তুমুল সমালোচনার ঝড় উঠেছে। এই বিজ্ঞাপনে আমাদের তরুণ প্রজন্মকে ভুলভাবে উপস্থাপন ও বেপথে পরিচালিত করতে উদ্বুদ্ধ করা হয়েছে। সচেতন মহল থেকে শীঘ্রই এটি নিষিদ্ধের দাবি করা হচ্ছে।

সম্প্রতি ইউটিউব ও ফেসবুকে প্রকাশিত হয় এয়ারটেল থ্রিজি প্যাকেজের ‘লাইফ আফটার থ্রিজি’ নামক একটি বিজ্ঞাপন। সেখানে প্রথমে তুলে ধরা হয়, মানুষের জীবনধারায় থ্রিজি নেটওয়ার্ক সংযুক্ত হবার পূর্বেকার কাহিনী। বন্ধুদের নিয়ে ফ্ল্যাটবাড়িতে হইহুল্লোর করতে থাকা ছেলেকে তার বাবা-মা ফোন করে। তখন ছেলেটি মোবাইলে তার বাবা-মা’কে বলে, সে তার বন্ধুদের সাথে গ্রুপ স্টাডি করছে। কিন্তু এইধরণের চাপাবাজির দৃশ্যপট পালটে যায়, যখন জীবন ধারায় থ্রিজি প্রযুক্তি সংযুক্ত হয়। ফেসবুকে ও ইউটিউবে বিজ্ঞপন চিত্রটি প্রকাশিত হলে তা নিয়ে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের সমালোচনার ঝড় বইতে থাকে।

আনান আহমাদ ফেসবুকে মন্তব্য করেছেন আচ্ছা, ‘এয়ারটেল আমাদেরকে কি চাপাবাজিই শিখাতে চাচ্ছে? আরেকটা বিষয়ন হলো, 3G মানে তিনটা মেয়ে নিয়ে পোজ দেয়া, কেও এটাকে আবার অন্য কিছু ভেবে বসলে তাকে দোষ দেয়া যাবে না।
এইসব আজাইরা বিজ্ঞাপন না দিয়ে ইন্টারনেটের দাম কমান, কাজে দিবে। লাইফে দেখা অন্যতম বাজে বিজ্ঞাপন ছিলো এইটা।’

তাহমিনা লিখেছেন, ‘এই বিজ্ঞাপন আমি আমার বাবা-মার সাথে একসাথে বসে দেখবো কিভাবে?’

শাহরিয়ার রহমান লিখেছেন, ‘মনে আছে, একটা সময় বাংলালিংক সিম ব্যবহার করতাম, শুধুমাত্র ওদের নাচানাচির বিজ্ঞাপন দেখে সেই জিনিস ব্যবহার করা করা বাদ দিয়েছি। এখন এই বিজ্ঞাপনটি দেখে কি করব বুঝতে পারছি না!’

‘চাপাবাজি যখন অন্য লেভেলে’ স্লোগান ধারণ করা বিজ্ঞাপনটি এখনো টেলিভিশনে সম্প্রচারিত হয়নি। ওদিকে বিজ্ঞাপনটি এরই মধ্যে নিষিদ্ধ করার দাবী জানান ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা।

বিজ্ঞাপনটি দেখতে ভিডিওটিতে ক্লিক করুন:

facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedin