ওজন কমাতে কোনটি কার্যকর: ডায়েট না ব্যায়াম

|নুসরাত নীলিমা|


ব্যায়াম বা শরীরচর্চা আমাদের শরীরে অনেক উপকারী প্রভাব ফেলে, কিন্তু ওজন নিয়ন্ত্রনে কি এটাই যথেষ্ট। এ প্রশ্নে প্লেজ হারবার স্কুল এন্ড স্পোর্টস্‌ একাডেমির মেডিক্যাল অফিসার ডা: কামরুল ইসলাম বলেন, ওজন নিয়ন্ত্রনে ব্যায়াম কিংবা ডায়েট (খাদ্য নিয়ন্ত্রন) একাকী কাজ করতে পারেনা। যদিও ব্যায়াম প্রচুর ক্যালরি পোঁড়ায়, কিন্তু আরেকটা কাজ করে তা হলো খাবারের রুচি বাড়িয়ে দেয়। এজন্য দেখা যায় ব্যায়ামের মাধ্যমে যেটুকু ওজন কমার কথা থাকে, তা বেশি খাওয়ার মাধ্যমে পুষিয়ে যায়।

girl copy

ব্যায়াম না খাদ্য নিয়ন্ত্রন?


ওজন কমাতে খাদ্য নিয়ন্ত্রন এবং ব্যায়ামের সম্পর্ক স্থাপন করতে সম্প্রতি নেদারল্যান্ডে একটি গবেষনা করা হয়েছে। এখানে প্রায় ৪৬৪ জন বেশি ওজনের মহিলাকে তিনটি গ্রুপে ভাগ করা হয়েছে। ১ম গ্রুপটিকে ব্যায়াম করতে বলা হয়েছে, ২য় গ্রুপকে শুধু খাদ্য নিয়ন্ত্রণ আর ৩য় গ্রুপকে দুটোই করতে বলা হয়েছে। প্রায় ৬ মাস পর যে তথ্য পাওয়া গেল তা সত্যিই অবাক করার মতো। ১ম গ্রুপের মহিলাদের বড়জোর ১ কেজির মতো ওজন কমেছে। ২য় গ্রুপের গড়ে ৬ কেজির মতো ওজন কমেছে, আর ৩য় গ্রুপ যারা ব্যায়াম এবং খাদ্য নিয়ন্ত্রন দুটোই করেছে তাদের গড় ওজন কমেছে ১০ কেজি!

ব্যাখ্যা
১ম গ্রুপ যারা শুধু ব্যায়াম করেছে, এর ফলে তাদের শরীরে ক্যালরির যে ঘাটতি হয়েছে তা তাদের খাদ্যের মাধ্যমে পুরণ হয়ে গেছে। এসব মহিলাদের ক্ষুধা লাগা এবং খাবারের রুচিও বেড়ে গেছে। এজন্য ওজন খুব একটা কমেনি। আবার যারা ২য় গ্রুপ এরা খাদ্য নিয়ন্ত্রন করেছে। এর ফলে শরীরের দৈনিক যে চাহিদা তা পুরণ হয়নি। ফলে এদের ওজন কিছুটা কমেছে। সর্বশেষ ৩য় গ্রুপ ব্যায়াম এবং খাদ্য নিয়ন্ত্রন দুটোই করেছে। এর জন্য এদের ওজন সবচেয়ে কমেছে। কারণ ব্যায়ামের মাধ্যমে ক্যালরি ঘাটতি হয়েছে তা খাবারের মাধ্যমে তো পুরণ হয়নি বরং খাদ্য নিয়ন্ত্রন ক্যালরি আরো কমিয়েছে।

ওজন কমানোর ক্ষেত্রে এরকম আরো বহু গবেষনা হয়েছে ব্যায়াম এবং খাদ্য নিয়ন্ত্রন এর যৌথ প্রভাব দেখতে। এবং সবাই এই বিষয়ে একমত হয়েছেন যে ওজন কমানোর ক্ষেত্রে যখন ব্যায়াম এবং খাদ্য নিয়ন্ত্রন এদুটোর সমন্বয় ঘটে তখনই তা সবচেয়ে কার্যকর হয়। তাই আপনি যদি ১ম এবং ২য় গ্রুপের মধ্যে হয়ে থাকেন, তার পরিবর্তন করে ৩য় গ্রুপে চলে আসুন।

facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedin