চুল ট্রিম করা বা আগা ছাঁটার সঠিক নিয়ম

|আনামিকা মৌ|

rupcare_hair trim

নিজের লুকস্‌কে চেঞ্জ করতে আমরা চুলে নানা স্টাইলের কাট দেই। শুরুতে বেশ প্রশংসা পেলেও মাস দুয়েক পর দেখা যায় চুলের আগা বেড়ে সরু হয়ে গেছে। ফলে চুলের সৌন্দর্যও কমে যায়।

তবে আপনি যে ধরনের কাটই দেননা কেন চুলের আগা ফাটা বা সরু হয়ে যাওয়া সমস্যা কম-বেশি সবারই হয়। তাই বলে স্টাইলিশ হেয়ার কাট দেয়া তো বন্ধ থাকবেনা। আর এ ধরনের সমস্যা বেশি দেখা যায় লেয়ার, ভলিউম লেয়ার, স্টেপ ও ব্যাংগস কাট করানো হলে। আবার রিবন্ডিং করা চুলেও অনেক সময় আগা দু ভাগ হয়ে যায়। চুল ট্রিম করে, অর্থাৎ আগা ছেটে এসব সমস্যা দূর করা সম্ভব।

অনেকেই মনে করেন, ট্রিম করা মানে আবারো চুল কাটা, কিংবা এক-দুই ইঞ্চি কেটে ফেলা। বিষয়টি তা নয়। সামান্য আগা ছাটাই হচ্ছে ট্রিম। বিউটি পার্লারে গিয়ে আপনি কতোটুকু চুল ছাটতে চান তা আগে ভাল করে বুঝিয়ে বলতে হবে। চুলে যে কাট ছিল, সেটিও বলে নিন। সে অনুযায়ী ট্রিম করতে হবে। তাহলে আর ঝামেলায় পরতে হবে না।

সাধারণত তিন মাস পর চুলের আগা ছাটতে হয়। কিন্তু লেয়ার কাট, ভলিউম লেয়ার, ভলিউম স্টেপ, ডিপ ইউ কাট থাকলে এক মাস অন্তর ট্রিম বা আগা ছাটা উচিত। এতে চুলের কাটের কোন পরিবর্তন হবেনা। আগের মতো সুন্দর দেখাবে। তা না হলে আগা সরু হয়ে এসব কাটের বিশেষত্ব হারাবে। এরপর আপনি চাইলে ছয় মাস পর নতুন কোন কাটে আপনার চুল সাজিয়ে পরিবর্তন করতে পারেন আপনার লুকস্‌।

facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedin