চুল রিবন্ডিং করার আগে যে বিষয়গুলো অবশ্যই মনে রাখবেন

|রূপ-কেয়ার ডেস্ক|

নিত্য নতুন ফ্যাশানের ট্রেন্ড পরিবর্তনের সাথে সাথে অনেক কিছুরই পরিবর্তন হয়। আর এরই সাথে তাল মিলিয়ে চলতে গিয়ে অনেকেই নিজের ঢেউ খেলানো কিংবা কোঁকড়া চুলগুলো রিবন্ডিং করে স্ট্রেইট করে ফেলেন। স্ট্রেইট চুল বর্তমানের ফ্যাশনে অনেক বেশি চলছে। এর সুবিধা হলো খুব সামান্যতেই চুল গুছিয়ে রাখা যায় এবং দেখতেও বেশ ভালো লাগে। চুল রিবন্ডিং আপাত দৃষ্টিতে বেশ ভালো মনে হলেও এটি হতে পারে চুলের মারাত্মক ক্ষতির কারণ। চুল রিবন্ডিং করার পর চুলের বেশ ভালো যত্ন না নিলে চুলের মারাত্মক ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তাই চুল রিবন্ডিংএর ক্ষেত্রে বেশ কিছু বিষয় রয়েছে যা মাথায় রাখা বেশ জরুরী। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক চুল রিবন্ডিংএর জরুরী বিষয়গুলো।

♦  চুল রিবন্ডিং করার পর যতো ভাবেই যত্ন নেন না কেন চুল পড়বেই। এবং চুলের মাঝ থেকে ভেঙে যাওয়ার সম্ভাবনাও দেখা যাবে। কারণ যেসকল কেমিক্যাল ব্যবহার করে চুল রিবন্ডিং করা হয় তা চুলের গোঁড়া নরম করে দেয় এবং চুলের ফলিকল দুর্বল করে ফেলে।

♦  চুল রিবন্ডিং করার পরবর্তী কিছু দিন বেশ গুরুত্বপূর্ণ সময়। কারণ এই সময় ঠিক মতো চুল সেট না হলে রিবন্ডিংও বেশিদিন থাকবে না এবং চুলেরও বেশ বড় ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

♦  গরম কালে অর্থাৎ এই সময় চুল রিবন্ডিং করালে আলাদা করে বিশেষ যত্ন নেয়া জরুরী। বেশ ভালো ব্যান্ডের শ্যাম্পু এবং কন্ডিশনার ব্যবহার করতে হবে। প্রয়োজনে রিবন্ডিং চুলের জন্য যে আলাদা ধরণের শ্যাম্পু পাওয়া যায় তা ব্যবহার করতে হবে।

♦  এই আবহাওয়ায় রিবন্ডেড চুল একেবারেই খোলা রাখা যাবে না। বাইরে বেরুতে হলে অবশ্যই চুল ঢেকে বের হতে হবে। কারন সূর্যের আলোয় রিবন্ডেড চুল খুব দ্রুত ক্ষতিগ্রস্থ হয়।

♦  চুল রিবন্ডিংএর পরপরই চুলে শ্যাম্পু কিংবা অন্যকোন হেয়ার মাস্ক ব্যবহার ভুলেও করবেন না। অন্তত তিন দিন পরে শ্যাম্পু করুণ। এতে রিবন্ডিং চুল সেট হবে। এবং কেমিক্যাল ও শ্যাম্পুর কোনো রিঅ্যাকশন হবে না।

♦  চুল রিবন্ডিং এর পরে অবশ্যই পার্লারের পরামর্শ অনুযায়ী সঠিক চুলের প্রোটিন প্যাক এবং হেয়ার সেরাম নিয়মিত লাগাতে হবে। এতে করে চুলের কম ক্ষতি হবে। চুলের ফলিকল খুব বেশি দুর্বল হবে না।

♦  বাসায় প্রোটিন প্যাক বানিয়ে চুলে লাগাতে পারেন। ১ টি কলা, ১ টি ডিম, ৫ টেবিল চামচ টক দই ব্লেন্ডারে দিয়ে ভালো করে ব্লেন্ড করে নিন। এরপর এই প্যাকটি চুলে দিয়ে রাখবেন আধা ঘণ্টা। এতে চুল পুষ্টি পাবে।

তথ্যসূত্র: প্রিয় লাইফ

facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedin