জন্ম সংখ্যা দিয়ে জেনে নিন মানুষের স্বভাব কেমন!

rupcare_numbers-theory

সংখ্যাতত্ত্ব মানুষের জীবনে খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। সংখ্যাই বলে দেয় মানুষের চরিত্র। অবাক হচ্ছেন? হ্যাঁ এটাই সত্যি। ১ সংখ্যার জাতক-জাতিকাদের মধ্যে যেমন থাকে নেতৃত্বদানের স্বাভাবিক ক্ষমতা তেমনই ৬ সংখ্যার জাতক-জাতিকারা শিল্পীসুলভ হয়ে থাকেন। দেখে নিন কোন তারিখে জন্মালে, কেমন হবে আপনার চরিত্র-

জন্ম তারিখের প্রতিটি অংক (দিন, মাস, বছর সহ) পরস্পরের সঙ্গে যোগ করে মূলাঙ্ক পাওয়া যায়। যোগফল যদি দুই অংকের হয়, তবে সেদু’টিও ফের পরস্পরের সঙ্গে যোগ করতে হবে, যতক্ষণ না এক অংকের সংখ্যা আসবে। ধরা গেল, এক ব্যক্তির জন্ম তারিখ ১৫-৬-১৯৯০। সুতরাং, হিসাবটি দাঁড়াবে ১৫+৬+১৯৯০= ২০১১ এরপর ২+০+১+১=৪। তার মানে ১৫-৬-১৯৯০, এদিনে জন্ম নেওয়া জাতক বা জাতিকার মুলাঙ্ক ৪।

১— এটি রবির সংখ্যা। এই সংখ্যা নির্দেশ করে অহং, আমিত্বোবধ, গর্ব। ১, ১০, ২৯ তারিখে জন্ম হওয়া জাতক-জাতিকাদের নেতৃত্বদানের ক্ষমতা থাকে। এঁদের নিজস্ব দৃষ্টিভঙ্গি থাকে। অন্যের দ্বারা চালিত হতে পছন্দ করে না।

২— এটি চন্দ্রের সংখ্যা। এই সংখ্যা কোমলতা, আবেগের প্রতীক। ২,১১,২০,২৭ সংখ্যার জাতক-জাতিকারা কল্পনার জগতে থাকতে ভালবাসে। এঁরা শিল্পী-লেখক হিসেবে সাফল্য অর্জন করতে পারেন। এই সংখ্যার জাতক-জাতিকারা খুবই সৎ এবং বিশ্বাসী হন।

৩— এটি বৃহস্পতির সংখ্যা। ৩, ১২, ২১, ৩০ তারিখে জন্ম হলে ব্যক্তিত্বের মধ্যে থাকে বৃহস্পতির প্রভাব। এই সংখ্যা নির্দেশ করে উচ্চ আদর্শ, নেতৃত্ব, উচ্চাকাঙ্খা। এঁরা লোকমান্য হন। যে কোন কাজ সামনে থেকে নেতৃত্ব দিতে পারেন। এঁরা খুব নিয়ম মেনে চলেন এবং দায়িত্বশীল হন। এঁদের মধ্যে সত্যবাদিতা, গাম্ভীর্যতা থাকে।

৪— রাহু বা ইউরেনাসের সংখ্যা। ৪, ১৩, ২২, ৩১ সংখ্যায় জন্ম হলে যেমন একদিকে থাকে উদ্যম, প্রচেষ্টা তেমনই থাকে তাতে জল ঢেলে দেওয়ার প্রচেষ্টা। এঁদের জীবনে ওঠা-পড়া থাকবে ও জীবন ঐশ্বর্যপূর্ণ হবে।

৫— এই সংখ্যার অধিপতি বুধ। ৫, ১৪, ২৩ তারিখে জন্ম হওয়া ব্যক্তিরা পড়াশোনা করতে ভালবাসেন। এই সংখ্যা নির্দেশ করে বুদ্ধিমত্তা, দ্বৈতসত্তা। এঁরা বন্ধুবান্ধব ভালবাসে। কখনও একাকী জীবনযাপন করেন না। ভাল কথা বলতে পটু হয় এই সংখ্যার জাতক-জাতিকারা।

৬— এটি শুক্রের সংখ্যা। একরোখা, জেদি হয় ৬, ১৫, ২৪ তারিখে জন্ম হওয়া জাতক-জাতিকারা। ভোগবিলাস এবং সৌন্দর্য্যপ্রিয়তা এঁদের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য। এই সংখ্যা সৌখিনতার প্রতীক। বিপরীত লিঙ্গের সংসর্গ পছন্দ করেন। শিল্পকলার প্রতি আকর্ষণ থাকে।

৭— সংখ্যাটি গোপনীয়তার প্রতীক। এটি কেতুর সংখ্যা। মৌলিক ভাবধারা, সুদৃঢ় ব্যক্তিত্ব এবং স্বাধীনচেতা মনোভাব দেখা যায় ৭, ১৬, ২৫ তারিখে জন্ম হওয়া ব্যক্তিদের। এই সব ব্যক্তিরা চাপা স্বভাবের হয়।

৮— এই সংখ্যাটি শনি গ্রহের প্রতীক। পার্থিব সংখ্যা নয়। কঠিন পরিশ্রম এবং দূরদৃষ্টি এই সংখ্যার বৈশিষ্ট্য। এই সংখ্যার জাতক-জাতিকারা বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে শান্ত স্বভাবের হয়ে যান। এঁরা নিয়ম মেনে কাজ করতে ভালবাসেন। একাকীত্ব বেশি পছন্দ করেন। আধ্যাত্মিক জগতের প্রতি স্বাভাবিক আকর্ষণ থাকে।

৯— এটি মঙ্গলের সংখ্যা। যৌবনের প্রতীক। আগ্রাসী, উদ্যমী, উচ্চাকাঙ্খী হয় ৯, ১৮, ২৭ তারিখে জন্ম হওয়া ব্যক্তিরা। আধিপত্য, নেতৃত্বদানের ক্ষমতা এঁদের সহজাত। এঁদের মধ্যে থাকে বাঁধন না মানা মনোভাব। কারওর অধীনে থাকতে ভালবাসেন না এঁরা। এই সংখ্যার জাতক-জাতিকারা হন স্বাধীনচেতা। চিন্তা-ভাবনার থেকে আবেগকে বেশি গুরুত্ব দেন এই সংখ্যার মানুষ।

facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedin