ত্বকের ধরন বুঝে সানস্ক্রিনের ব্যবহার

|অনামিকা মৌ|


রোদ এবং সূর্যের তাপ দুটোই ত্বকের জন্য ক্ষতিকারক। আমরা সবাই কমবেশি যে সমস্যাটায় ভুগে থাকি তা হলো সানবার্ণ বা রোদে পোড়া। রোদে পোড়া থেকে রক্ষা পাওয়ার একটি কার্যকরী উপায় হলো সানস্ক্রিন বা সানব্লকের ব্যবহার। বাজারে বিভিন্ন ধরনের সানস্ক্রিন পাওয়া যায়, যেমন ক্রিম, অয়েন্টমেন্ট, জেল, লোশন, স্প্রে, পাউডার ওয়েক্স স্টিক ইত্যাদি। তবে এগুলোর মধ্যে আপনাকে ত্বকের ধরন অনুযায়ী বাছাই করে নিতে হবে।

ত্বক অনুযায়ী সানস্ক্রিন:
• আপনার ত্বক যদি শুষ্ক হয় তাহলে ক্রিমটাই আপনার জন্য ভালো।
• তৈলাক্ত ত্বকের জন্য লোশন ব্যবহার করতে পারেন।
• তবে অতিরিক্ত তৈলাক্ত ত্বক যাদের তারা অয়েল ফ্রি লোশন অথবা সানব্লক পাউডার ব্যবহার করতে পারেন।
• আপনার হাত যদি লোমশ হয়, সেক্ষেত্রে ঐস্থানে জেল ব্যবহার করলে ভালো ফল পাবেন।
• চোখের চারপাশের ত্বক খুবই স্পর্শকাতর এজন্য এখানে ওয়েক্স স্টিক ব্যবহার করা যেতে পারে।
• যাদের ত্বক বেশি স্পর্শকাতর তারা শিশুদের উপযোগী সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে পারেন।

তবে আমাদের দেশের যেমন আবহাওয়া এর জন্য যেই ব্র্যান্ডের সানস্ক্রিনই ব্যবহার করুন না কেন এর এসপিএফ(সান প্রটেকশন ফ্যাক্টর) ৪০ এর বেশি হওয়া জরুরী। এর কম হলে কার্যকরীতা কমে যাবে। শিশুদের জন্য এসপিএফ(সান প্রটেকশন ফ্যাক্টর) ১৫ এর বেশি হতে হবে। এই সানস্ক্রিনটি আপনি ঠোট এবং চোখের নিচের স্পর্শকাতর জায়গা গুলোতেও ব্যবহার করতে পারবেন। বাজরে সানস্ক্রিনের সাথে সাথে সানব্লক নামক উপাদানটিও পাওয়া যায়। স্কিন স্পেশালিস্টদের মতে সানস্ক্রিনের চেয়ে সানব্লকই ভাল কাজ করে।

facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedin