নবাবি আমেজে পূজোর স্বাদ: দম পুখত নবাবি

|রূপ-কেয়ার ডেস্ক|

rupcare_dum pukht nababi1

পূজো একেবারে দোড়গোড়ায় এসে পড়েছে। কুমারপাড়ায় যেমন প্রতিমা গড়তে ব্যস্ততা তুঙ্গে, তেমনি তোড়জোড় চলছে রান্নাঘরেও। পুজোর চারটি দিন কী কী রান্না করবেন, সেই নিয়েই মাথাব্যাথা এখন গৃহিনীদের। এই পুজোর মধ্যে বাড়িতে লোকজন এলে কিছু স্পেশাল রান্না না করলেই নয়। বাঙালিয়ানা রান্নার পাশাপাশি মুঘল রান্নাও এখন ঢুকে পড়েছে বাঙালির হেঁসেলে। তাই বাঙালী রান্না তো থাকবেই, যদি পাতে থাকে নবাবি রান্না , তাহলে তো আর কথাই নেই। এবারের পুজোয় বিরিয়ানি, চিকেন রেজেলার গণ্ডি পেরিয়ে “দম পুখত নবাবি” রেঁধে তাক লাগিয়ে দিতে পারেন আপনিও।

দম পুখত নবাবি:
এটি একটি ঐতিহ্যপূর্ণ ভারতীয় খাবার। সাধারণত কাশ্মীর, হায়দরাবাদ সহ উত্তর ভারতে এই নবাবি রান্নার চল রয়েছে। বিরিয়ানি ও মটনকে একসঙ্গে বানানো হয়। যা অনেকটি থাক থাক করে পরিবেশন করা হয়।

যা যা লাগবে:
বড় সাইজের একটি প্যান নিন, যাতে ওভেনে বা চুলায় বসালে দ্রুত গরম হয়ে যায়।
১ কেজি মাটন
৫০০ গ্রাম বাসমতি চাল
৫০ গ্রাম ব্রাউন পেঁয়াজ
২০০গ্রাম দেশি ঘি
১০ গ্রাম লবঙ্গ
১০ গ্রাম দারচিনি
১০ গ্রাম তেজপাতা
১০ গ্রাম এলাচ,
১০০ মিলি ফ্রেশ ক্রিম
২৫০ গ্রাম টক দই
লবণ স্বাদমতো

আরো লাগবে আন্দাজ মতো হলুদ গুঁড়ো, জয়ত্রী, আদা বাটা ও কুঁচানো, রসুন বাটা, গোলাপ জল, মিন্ট পাতা, কাঁচা মরিচ কুঁচো, লেবুর রস, জিরা ও ময়দা।

যেভাবে করবেন:
প্রথমে মাটন রান্না দিয়ে শুরু করি। একটি প্যানে ঘি গরম করুন। তাতে সমস্ত গরম মশলাগুলি দিয়ে দিন। এরপর ভালো করে ভাজা হয়ে গেলে তাতে টুকরো করে রাখা মাটন দিন। অল্প একটু লবণ দিয়ে ভালো করে রান্না করুন। যাতে মশলাগুলি মাটনের সঙ্গে ভালো করে মিশে যায়। এরপর আদা বাটা ও ব্রাউন পেঁয়াজ (আগে থেকে ভেজে রাখা পেঁয়াজ) দিন। একটু নেড়ে চেড়ে নেবার পর টক দই দিয়ে দিন। ভালো করে কষে নিন। দেখবেন আস্তে আস্তে তেল মশলা থেকে আলাদা হয়ে যাবে। এবার হলুদ গুঁড়ো, মরিচ গুড়ো, এলাচ গুড়ো ও জয়ত্রী গুঁড়ো দিন।। ভালো করে কষে নিয়ে অল্প জল দিয়ে প্যানের ঢাকনাটি দিয়ে দিন।

অন্যদিকে একটি প্যানে জল গরম করতে দিন। তাতে বাসমতি চাল সেদ্ধ করতে দিন। ভাত বেশ সেদ্ধ হয়ে গেলে তাতে সবকটি গরম মশলা, লেবুর রস ও স্বাদমতো লবণ দিয়ে নেড়ে দিন। ভাত সেদ্ধ হয়ে গেলে নামিয়ে রাখুন।

rupcare_dum pukht nababi2

কী করে পরিবেশন করবেন:
একটি বড় পাত্রে রান্না করা মাটন দিন, তার উপরে রান্না করা ভাত। তাতে ঘি ও ফ্রেশ ক্রিম দিয়ে দিন। গার্নিসের জন্য মিন্ট পাতা, আদা কুচানো, ব্রাউন পেয়াজ, ও জাফরণ (আগে থেকে জল বা দুধের মধ্যে ভিজিয়ে রাখা) ছড়িয়ে দিন। এবার পাত্রের ঢাকনাটির চারিধারে ময়দা দিয়ে বুজিয়ে দিন। একটি আয়রন গ্রিডেলে বসিয়ে মাইক্রোওয়েভে বা চুলার জন্য তৈরী গ্যাস ওভেনে ১৫ মিনিট রান্না করুন।

ব্যাস, এবার গরম গরম পরিবেশন করুন “দম পুখত নবাবি”

facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedin