পূজোর কেনাকাটায় জমজমাট রাজধানী

|রূপ-কেয়ার ডেস্ক|

rupcare_puja0

শারদীয় দুর্গাপূজা প্রায় চলেই এলো। জাকজমক আয়োজনে ধূপ আর ঢাকের বাড়ির শব্দও কদিন পরই কানে আসবে। তাই মণ্ডপ আর প্রতিমা সাজানোর পাশাপাশি আয়োজন চলছে সাজ-পোশাক নিয়েও। এরমধ্যেই পাঁচ দিনব্যাপী পূজোতে সাজ-পোশাকে যথাযথ যোগান নিয়ে প্রস্তুত শপিংমল গুলো।

পূজা উপলক্ষে মার্কেটগুলোর পাশাপাশি বুটিক হাউজগুলোও শারদীয় ফ্যাশনকে কেন্দ্র করে নতুন পোশাকের পসরা এনেছে। ছেলেদের টি-শার্ট, পাঞ্জাবির পাশাপাশি মেয়েদের জন্য রয়েছে লাল-সাদার শাড়ি ও সালোয়ার-কামিজসহ বিভিন্ন উজ্জ্বল রঙের পোশাক।

আজিজ সুপার মার্কেটে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া দিগন্ত রায় নামের এক ক্রেতা বলেন, “কিছুদিন পর থেকেই তো ঢাকের বাড়ি পরবে। পূজোটা দেশে পরিবারের সাথেই করি। সেজন্য বাবা, মা আর একমাত্র বোনের জন্য পছন্দসই পোশাক খুঁজছি।”
আরেক ক্রেতাকে দেখা গেল ঘুরে ঘুরে শাড়ি দেখতে। চারুকলার অধ্যয়নরত সুস্মিতা রায় খুঁজছেন লাল সাদা সমন্বয়ের শাড়ি। তিনি বলেন, “সনাতনী সাজের লাল সাদা শাড়ি তো কিনবোই সেই সাথে হাল ফ্যাশনের কিছু পোশাকও পছন্দ হয়েছে।”

ফ্যাশন ডিজাইনার রাকিব খান বলেন, “দূর্গাপূজা খুব রঙ্গিন এক উৎসব। লাল সাদার পাশাপাশি আরও অনেক রঙের পোশাকে সাজতে দেখা যায় এ সময় সবাইকে। মোট কথা এ সময় পোশাকে উজ্জ্বল রঙের ছাপটা বেশি থাকে।” কাপড় প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “এখন তো একটু আধটু বৃষ্টি হচ্ছেই। তারপরও সুতির সবসময়ই আরামদায়ক।”

পূজো উপলক্ষে নতুন সাজে সেজেছে ফ্যাশন হাউজগুলো। শাড়ি, ফতুয়া, টি-শার্টের পাশাপাশি এবার নিয়ে আসা হয়েছে ধুতি পায়জামা। আজিজ সুপার মার্কেটের বেশকিছু ফ্যাশন হাউজে দেখা গেল নতুন ধরণের এ পায়জামা।

এদিকে, বসুন্ধরা সিটি মার্কেটের শোরুমগুলোও সেজেছে শারদীয় সাজে। বিশেষত ‘দেশী দশ’-এ গেলেই দেখা যাবে উজ্জ্বল রঙের পোশাক। লালের আধিক্য থাকলেও সবুজ, নীল, সাদা আর বেগুনীও সমান তালে ব্যবহার করা হয়েছে পোশাকগুলোতে।
ছেলেদের জন্যও পাঞ্জাবির পাশাপাশি পাওয়া যাচ্ছে ধূতি। সৌরভ সরকার নামের তরুণ ক্রেতা বলেন, “শার্ট, ফতুয়া কিনলেও মণ্ডপে পাঞ্জাবি চাইই চাই। পাশাপাশি একটি ধূতিও নেয়ার চিন্তা ভাবনা করছি।”

এছাড়াও রাজধানীর বেইলি রোড, মৌচাক, ইস্টার্ন প্লাজা, এলিফেন্ট রোড, গাউছিয়া, নিউ মার্কেটেও ক্রমেই জমে উঠছে পূজোর কেনাকাটা।

আসুন দেখে নেয়া যাক পুজোয় নামীদামি ফ্যাশন হাউজগুলোর কিছু কালেকশন: