ফর্সা, উজ্জ্বল ত্বক পেতে যে খাবারগুলো খাবেন

|রূপ-কেয়ার ডেস্ক|

ত্বক ফর্সা কিংবা উজ্জ্বল দেখানোর জন্য কত জনই না কত কিছু করে। কেউ দামী প্রসাধনী লাগান আবার কেউ নিয়মিত পার্লারে গিয়ে ত্বকের যত্ন নেন। ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করার জন্য প্রকৃতিতেই আছে কিছু সমাধান। সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক কিছু খাবার খেয়েই বাড়ানো সম্ভব ত্বকের উজ্জ্বলতা। সেই সঙ্গে ত্বককে সূর্যের ক্ষতিকর প্রভাব ও পরিবেশ দূষন থেকেও রক্ষা করা সম্ভব। আসুন জেনে নেয়া যাক ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে এমন ৫টি প্রাকৃতিক খাবার সম্পর্কে।

মিষ্টি আলু
মিষ্টি আলুতে আছে প্রচুর ভিটামিন এ। ভিটামিন এ ত্বককে সুস্থ ও উজ্জ্বল রাখতে সহায়তা করে।

নিয়মিত মিষ্টি আলু খেলে ত্বকের লালচে ভাব কমে এবং উজ্জ্বল হলুদ আভা বৃদ্ধি পায়। ফলে ত্বক দেখায় উজ্জ্বল ও সতেজ।

টুনা ও স্যামন
সামুদ্রিক তেল যুক্ত টুনা ও স্যামন মাছে আছে বায়োটিন যা ত্বকের জন্য খুবই উপকারী। এছাড়াও এগুলোতে আছে ভিটামিন বি যা ফ্যাটি এসিড তৈরি করে এবং এমিনো এসিড মেটাবোলাইজ করে। এই মাছ গুলো নিয়মিত খাওয়ার অভ্যাস করলে ত্বক সতেজ ও উজ্জ্বল দেখায় সেই সঙ্গে কমে যায় ব্রণের উপদ্রব।

বাদাম
বাদামে আছে প্রচুর ভিটামিন ই, ফাইবার ও প্রোটিন। এই তিনটি উপাদান ত্বককে সজীব ও উজ্জ্বল দেখাতে সহায়তা করে এবং ত্বকের মৃত কোষ দূর করে ত্বককে রাখে উজ্জ্বল ও প্রানবন্ত। এছাড়াও ত্বককে সূর্যের ক্ষতিকর আলোর প্রভাব থেকে মুক্ত করে বাদাম। ফলে ত্বক উজ্জ্বল দেখায়।

সূর্যমূখীর বীজ
সূর্যমূখীর বীজে আছে প্রচুর ভিটামিন ই। ভিটামিন ই ত্বককে সূর্যের ক্ষতিকর প্রভাব থেকে মুক্ত রাখে এবং ত্বকের পুরনো কোষ পরিষ্কার করে নতুন কোষ তৈরি করতে সহায়তা করে। এছাড়াও প্রকৃতির ক্ষতিকর নানান উপাদান থেকে ত্বককে রক্ষা করে ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করতে সহায়তা করে সূর্যমূখীর বীজ।

কমলার রস
কমলার রসে আছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি। এছাড়াও এতে আছে প্রচুর অ্যান্টি অক্সিডেন্ট যা ত্বককে রক্ষা করে সূর্যের ক্ষতিকর প্রভাব ও পরিবেশের নানান ক্ষতিকর উপাদান থেকে। অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ত্বকের কোষ গুলোকে সজীব রাখে। ফলে ত্বক দেখায় উজ্জ্বল ও প্রাণবন্ত।

তথ্যসূত্র: প্রিয় লাইফ

facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedin