বিশাল সুখবরঃ ৫ বছর পর কপাল খুলছে আশরাফুলের….

images-3


বাংলাদেশ টেস্ট মর্যাদা পেয়েছে সেই ২০০০ সালে। কিন্তু এখন পয়ন্ত ভারতের মাটিতে পূর্ণাঙ্গ টেস্ট সিরিজ খেলেনি বাংলাদেশ।
টেস্ট মর্যাদা পাওয়ার পর ভারতে প্রথমবার টেস্ট সফর পেতে ১৭ বছর লেগে গেছে বাংলাদেশের। সেটিও ছিল স্রেফ এক টেস্টের সফর।

নতুন সূচিতে ২০১৯-২০ সালে ভারতে টেস্ট ও ওয়ানডের পূর্নাঙ্গ সফর আছে বাংলাদেশের। তবে বাংলাদেশের সেই স্বপ্ন পূরণ হচ্ছে।
অবশেষে ভারতের মাটিতে পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। ২০১৯ সালের নভেম্বরে ২ টেস্ট এবং ৩ ম্যাচের টি-টুয়েন্টি সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ।

ইএসপিএনের একটি ছবিতে এমনটাই বলেছে তারা। জুন ২০১৮ থেকে ২০২৩ সাল পয়ন্ত ভারত তাদের দেশে খেলবে ২০ টি সিরিজ। আর, বিসিবি থেকে জানা গেছে এই সিরিজ মোটামোটি চূড়ান্ত।

যার মধ্যে বাংলাদেশের একটি সিরিজ রয়েছে ভারতে। এ সময়ের মধ্যে সবচেয়ে বেশী ৪ টি সিরিজ খেলবে

অস্ট্রেলিয়ার সাথে। ২০১৯ সাল থেকে শুরু হচ্ছে অাইসিসি টেস্ট এবং ওয়ানডে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ।

অার তার অাদলে নতুন নিয়মে সিরিজ অায়োজন করবে প্রতিটি দল। ২০২২-২৩ মৌসুমে ফিরতি সফরে বাংলাদেশে আসবে ভারত।

২০১৯ খেকে ২০২৩ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশ খেলবে ৩৫টি টেস্ট। বছরখানেক ধরেই নতুন সূচি নিয়ে কাজ করছিল পূর্ণ সদস্য দেশগুলোর বোর্ড।

সবশেষ গত ৭ ও ৮ ডিসেম্বর সিঙ্গাপুরে আইসিসির কর্মশালায় দাঁড় করানো হয়েছে ভবিষ্যত সূচির একটি ছবি। কর্মশালায় ছিলেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী ও ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের ম্যানেজার।

আইসিসির চলতি ভবিষ্যত সূচিতে ৩৩ টেস্ট আছে বাংলাদেশের।

নতুন সূচি অনুযায়ী দুটি টেস্ট বেশি থাকবে। নতুন সূচি অনুযায়ী বাংলাদেশের চেয়ে বেশি টেস্ট খেলবে কেবল ভারত (৩৭টি), ইংল্যান্ড (৪৬টি) ও অস্ট্রেলিয়া (৪০টি)।

দেখুন সময় সুচিঃ

এই সময়ে ২৯ টেস্ট খেলবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ, ২৮টি নিউ জিল্যান্ড, ৩২টি দক্ষিণ আফ্রিকা, ২৯টি শ্রীলঙ্কা, ২৮টি পাকিস্তান, ১৭টি জিম্বাবুয়ে। টেস্ট পরিবারের নতুন দুই সদস্য আয়ারল্যান্ড খেলবে ১৬ টেস্ট, আফগানিস্তান ১৩টি।

উল্লেখ্য যে, আগামী এই সিরিজে আশরাফুলের খেলার সম্ভাবনা প্রচুর। কারন সম্প্রতি ডিপিএলে তার ৫টি সেঞ্চুরি তাকে জাতীয় দলে সুযোগ পাইয়ে দিতে পারে, আর যেহেতু তার নিশেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ, তাই তাকে দলে নিতে আর কোন বাধাই থাকছে না। বিসিবি থেকেও এমনটাই ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া ২০১৯-২০ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ ছবি : ইএসপিএন ক্রিকইনফো