মেনে চলুন সহজ ৬ টি টিপস আর চিরকাল স্লিম থাকুন

rupcare_way to slim figure

ওজন কমানোর চাইতে বেশী সমস্যা হয় ওজন কমানোর বিষয়টি ধরে রাখার ক্ষেত্রে। কষ্ট করে ব্যাপক পরিশ্রম করে ওজন কমিয়ে এনে পরে পরিশ্রম করা ছেড়ে অর্থাৎ ব্যায়াম ও ডায়েট করা ছেড়েদিয়ে আবার মোটা হয়ে যান অনেকেই। কিন্তু কিছু নিয়ম মেনে চললে খুব কষ্টকর ডায়েট এবং ব্যায়াম ছাড়াই চিরকাল স্লিম থাকা সম্ভব বেশ সহজে। জানতে চান কীভাবে? চলুন তাহলে জেনে নেয়া যাক খুবই সহজ কিছু টিপস।

১) নিজেকে উৎসাহী করুন

আপনি যদি মন শক্ত রাখতে না পারেন তাহলে কিছুই কাজ করবে না। আপনি মন শক্ত রেখে ডায়েট এবং ব্যায়াম করে গেলেই আপনার ওজন নিয়ন্ত্রণে রেখে চিরকাল স্লিম থাকতে পারবেন। কিন্তু যদি আপনি মাঝা পথেই উৎসাহ হারিয়ে ফেলেন তাহলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলবেন।

২) ৩ বেলার পরিবর্তে ৫/৬ বেলা খাবেন

৩বেলার পরিবর্তে ৫-৬ বেলা অল্প করে খাবার খাওয়ার অভ্যাস তৈরি করুন। তবে ৩ বেলায়যা খেতেন সেটাই ভাগ করে ৫-৬ বেলাতে নিয়ে আসবেন। একবারে বেশি খেলে খাবার হজমহতে দেরি হয় যার কারণে দেহে মেদ জমে। ৫-৬ বার খাবার খেলে একবারে কম খাওয়াহবে, মেদও জমবে না।

৩) নিজের খাদ্যাভ্যাস পাল্টে ফেলুন

অস্বাস্থ্যকর সকল খাবারকে না বলে স্বাস্থ্যকর খাবারের দিকে নজর দিন। তবে এর মানে এই নয় যে আপনি একেবারেই কেক পেস্ট্রি আইসক্রিম বা ফাস্ট ফুড খেতে পারবেন না। শুধু পরিমাণ কমিয়ে সপ্তাহে ১ দিন এমন খাবার খাওয়ার অভ্যাস করুন তাও পরিমিত।

৪) শুধু খাবার নয় পানীয়ের দিকেও নজর দিন

খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তন করলেন ঠিকই কিন্তু চিনি সমৃদ্ধ পানীয় পান করে ফেললেন ইচ্ছে মতো। তাহলে কিন্তু কোনো লাভই হবে না। পানিবাদে অন্যান্য যতো পানীয় পান করছেন তার সবগুলোর ব্যাপারে সর্তক থাকুন।সফট ড্রিংকস বাফলের জুস যা-ই হোক না কেন পানীয়ের বাড়তি চিনিটাই আপনার জন্য ক্ষতিকর।

৫) ক্যালোরি কম গ্রহণ করুন

ক্যালোরি যতো গ্রহণ করতে থাকবেন ততোই ওজনের ওপর তার প্রভাব পড়বে। তাই প্রতিবেলা খাবারের ক্যালোরি হিসাব করে খাবার খান। হিসেব মতো ক্যালোরি গ্রহণ করলেই চিরকাল দেহটাকে রাখতে পারবেন স্লিম।

৬) শারীরিক পরিশ্রমকে হ্যাঁ বলুন

ব্যায়াম করার জন্য আলাদা সময় বের না করতে পারলেও শারীরিক পরিশ্রমকে না বলবেন না কখনোই। স্লিমহওয়ার ব্যাপারটা ধরে রাখতে চাইলে পরিশ্রম করার অভ্যাস তৈরি করেফেলুন। সেটা বাইরের কাজও হতে পারে বাঘরের কাজ হতে পারে।