tok_makeup

যেমন ত্বকে যেমন মেক-আপ :

ত্বকের ধরণ আমাদের সাজসজ্জার একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। অনেকেই জানেন না তাদের ত্বকের ধরণে অনুযায়ী কি রকম মেক-আপ করতে হবে। যেনতেন ভাবে মেক-আপ না করে ত্বকের ধরণ অনুযায়ী করলে আপনার রূচিশীলতার প্রকাশ পাবে তেমনি তা আপনাকে করে তুলবে আকর্ষনীয়।

এখানে দেয়া হলো কোন ত্বকের জন্য কিভাবে মেক-আপ করতে হবে :-

তৈলাক্ত ত্বক
* প্রথমে ত্বক পরিস্কার করুন। তারপর অ্যাস্ট্রিনজেন্ট লোশন লাগান।
* ১০ মিনিট পর কম্প্যাক্ট পাউডার লাগান। ফাউন্ডেশন লাগাবেন না। কম্প্যাক্ট লাগালে ত্বকে অতিরিক্ত চকচকে ভাব থাকে না।
* ফাউন্ডেশন লাগাতে চাইলে ওয়াটার বেসড ফাউন্ডেশন লাগান।
* ত্বকে লাগানোর আগে একফোঁটা জল মেশান। না হলে কেক ফাউন্ডেশন বা প্যানস্টিক ব্যবহার করতে পারেন। তবে লাগানোর আগে অল্প জল মিশিয়ে নেবেন।
* ফাউন্ডেশন লাগানোর পর পাউডার লাগান। মুখে ফাউন্ডেশন সেট করা যাবে।
* পাউডার ব্লাশার ও আইশ্যাড ব্যবহার করুন।

রুক্ষ ও পরিণত ত্বক

বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ত্বকে বলিরেখা, ভাঁজ পড়তে থাকে। ত্বক অনুজ্জ্বল লাগে। ত্বক শুস্ক হয়ে পড়ে। ত্বকের যত্ন ও মেক-আপের প্রতি উত”সাহ কমে গেলে ট্রাই করুন সহজ কয়েকটি নিয়ম।
* সানস্কিন ও অ্যান্টিএজিং উপাদানসমুহ ময়শ্চারাইজার ব্যবহার করুন। এই বয়সে স্কিন কেয়ারের জন্য উপযুক্ত।
* ভারী ফাউন্ডেশনে ত্বকের বলিরেখা আরও স্পস্ট হয়ে ওঠে। তাই লিকু্ইড ও পাউডার ফাউন্ডেশন ব্যবহার করুন। লিকু্ইড ফাউন্ডেশন লাগালে ত্বকের অনুজ্জ্বল ভাব ঢাকা পড়ে। পাউডার ফাউন্ডেশন লাগালে আলাদা করে কম্প্যাক্ট লাগানোর দরকার পড়ে না।
* থ্রি ইন ওয়ান আইশ্যাডো-লিপ কালার-চিক কালার স্টিক কিনে নিন। আইশ্যাডো, চিকবোনে লাগানোর পর ব্রাশ দিয়ে লিপ কালার হালকা করে লাগান।
* চোখে আইলানার লাগান। কালোর বদলে গ্রে, ব্রাউন, ল্যাভেন্ডার কালার ট্রাই করতে পারেন। কাজল পেনসিলের বদলে আইলানার পেন ব্যবহার করুন।
* শেষে মাসকারার টাচ দিন। চোখ বড় ও সুন্দর দেখাবে।

facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedin