শীতে চাই পুরো শরীরের যত্ন

|রূপ-কেয়ার ডেস্ক|

rupcare_winter body care1

শুধু শীত কেন, সারা বছরই মুখের যত্ন করে থাকি আমরা। কিন্তু শুধু মুখের যত্ন করলে কি হবে? বিশেষ করে এই শীতে তো সেটা একদমই চলবে না। তাকিয়ে দেখুন তো নিজের পা গুলোর দিকে, মলিন আর কালচে দেখাচ্ছে না? গোড়ালি ফেটেছে না? নিজের কনুইর দিকে দেখুন,হাত বুলিয়ে দেখুন নিজের দেহে, চুলগুলোকে একটু নাড়া দিন। খসখসে আর প্রাণহীন লাগছে দেহের ত্বক,চুলে জমেছে খুশকি। না,চিন্তার কিছু নেই। কীভাবে স্বল্প সময়ে এই শীতেও দেহকে সুন্দর রাখতে পারবেন, আমাদের আজকের লেখা সেই বিষয়েই।

ত্বকের যত্নে চিনির স্ক্রাব ও মুলতানি মাটির মাস্ক
শীতে ত্বকের উপরিভাগ কালো হয়ে যায়। এর কারন হলো ত্বকের মরা কোষ। এই মরা কোষ দূর করতে সপ্তাহে অন্তত ৩ দিন স্ক্রাব করা উচিত।

একটি সহজ ও ঘরে তৈরি কিন্তু বেশ কার্যকরী স্ক্রাব হচ্ছে চিনি ও লেবুর রস। এক চা চামচ চিনিতে এক চা চামচ লেবুর রস দিয়ে আধগলা চিনি মুখে হাতে গলায় ও পায়ে ঘষে নিন। মুখে আলতো করে ঘষবেন। এতে ত্বকের উপরিভাগের মরা কোষ দূর হবে।

মুলতানি মাটি ত্বকের জন্য অনেক ভালো একটি উপাদান। এটা ত্বকের দাগ দূর করে ত্বককে মসৃণ করে তোলে। একটি বাটিতে ২/৩ টেবিল চামচ মুলতানি মাটি নিয়ে ৪/৫ টেবিল চামচ কাঁচা দুধ দিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করুন। এই মিশ্রণটি মুখে, হাতে, গলায় ও পায়ে লাগিয়ে রাখুন। শুকিয়ে উঠলে কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। মুখ ধোয়ার পর অবশ্যই ত্বকে ময়সচারাইজার লাগাবেন। এভাবে সপ্তাহে ২/৩ বার করুন। ত্বক ভালো থাকবে।

চুলের যত্নে লেবুর রস
শীতকালে মাথার ত্বকে ছোটছোট ফুসকুড়ি ওঠে ও খুশকির সমস্যা দেখা যায়। লেবুর রস এই সমস্যার সমাধান করবে। লেবুর রসের অ্যান্টিইনফ্লেমেটরি উপাদান খুশকি থেকে মাথার ত্বককে দূরে রাখে। মাথার ত্বকের স্বাস্থ্য ঠিক রাখতে অনেক হারবাল উপাদানেই লেবুর রস ব্যবহার করা হয়ে থাকে। আপনি ঘরে বসেই প্রাকৃতিক ভাবে লেবুর রসের মাধ্যমে মাথার ত্বককে সুস্থ রাখতে পারেন। স্বাস্থ্য উজ্জ্বল চুলের জন্য।

একটি গোটা লেবুর রস, ১/২ টেবিল চামচ নারকেল তেল, ১ টি ভিটামিন ই ক্যাপস্যুল। সবকটি উপাদান একসাথে একটি বাটিতে মিশিয়ে নিন। এরপর মাথার ত্বকে বিশেষ করে ফুসকুড়ি ও খুশকি আক্রান্ত স্থানে ভালো করে লাগান এই মিশ্রণ। ১ ঘণ্টা রেখে ধুয়ে ফেলুন। লেবুর রসের সাইট্রিক অ্যাসিড মাথার ত্বকের সব সমস্যা দূর করে ও খুশকি মুক্ত করে।

শরীরের যত্নে বাথ সল্ট ও মধুrupcare_winter body care2
মুখ, হাত, পা, মাথা, চুল সব কিছুরই যত্ন নেয়ার পাশাপাশি দেহের ত্বকের যত্ন নেয়া অনেক জরুরী। বাথ সল্ট শরীরের ত্বকের জন্য বেশ ভালো। বাথ সল্ট দেহের ত্বকের জন্য স্ক্রাবের কাজ করে। এতে শরীরের মরা কোষ দূর হয়। ও দেহের ত্বকের উপরিভাগ পরিষ্কার হয়। গোসলের সময় বাথ সল্ট ব্যবহার করুন।

স্ক্রাবিং এর পরে দেহের ত্বকের কোমলতা রক্ষায় গোসলের পানিতে মিশিয়ে নিন মধু। ১ বালতি পানিতে ৩/৪ টেবিল চামচ মধু ভালো করে মিশিয়ে সে পানি দিয়ে শরীর ধুয়ে ফেলুন। এতে দেহের ত্বকও থাকবে কোমল ও মসৃণ। গোসল শেষে ত্বকে লোশন লাগাতে ভুলবেন না।

হাত ও পায়ের যত্নে লেবু ও লবন গরম পানি
সারাদিন রোদ ও ধুলো ময়লায় হাত ও পায়ের অবস্থা বেশ খারাপ হয়ে যায়। কিন্তু খুব সহজেই দিন শেষে রাতের বেলা মাত্র ২০ মিনিট ব্যয় করে হাত ও পায়ে ফিরিয়ে আনতে পারেন হারিয়ে যাওয়া উজ্জলতা ও কোমলতা।

একটি তাজা লেবু কেটে হাত ও পায়ে ঘষে নিন। এরপর কুসুম গরম পানিতে লিটারে ১ চা চামচ লবন দিয়ে এতে হাত ও পা ডুবিয়ে রাখুন ১০-১৫ মিনিট। চাইলে পানিতে সামান্য শ্যাম্পুও দিতে পারেন। এরপর একটি মাজুনি দিয়ে আলতো করে হাত ও পা ঘষে নিন। এরপর হালকা কুসুম গরম পানিতে হাত পা ধুয়ে ও মুছে নিন। এরপর হাতে ও পায়ে অলিভ অয়েল লাগিয়ে নিন। এটা করুন সপ্তাহে ২ দিন।

তথ্যসূত্র: প্রিয় লাইফ

facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedin