সৌন্দর্য চর্চায় হলুদ

|আরফিন আলী তন্বী|

হলুদকে সাধারণত আমরা মশলা হিসেবে দৈনন্দিন ব্যবহার করে থাকি। কিন্তু শুধু মশলা হিসেবে নয়। হলুদ মানব দেহের জন্য ও সৌন্দর্য চর্চার জন্য বিশেষ উপকারী উপাদান।

হলুদের নানান গুণ—

-সূর্যের তাপে গা জ্বলে গেলে হলুদের পাউডারের মধ্যে বাদাম গুড়া ও দই মিশিয়ে লাগান।

-সৌন্দর্য বর্ধন করতে চন্দন গুড়ার সাথে হলুদ মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে মুখে মাখুন।এতে রঙ উজ্বল হবে।

-হলুদ আপনার রক্তকে শুদ্ধ করে।তাই হলুদের ফুলের পেষ্ট শরীরে লাগালে চর্ম রোগ দূর হয়।

-হলুদ আপনার শরীরের ডায়েট কনন্ট্রল করে।হলুদে কারকিউমিন নামে এক ধরণের রাসায়নিক পদার্থ রয়েছে যা শরীরে খুব তাড়াতাড়ি মিশে যায়।শরীরের কলা গুলোকে বাড়তে দেয় না।

-প্রতিদিন কাঁচা হলুদ বাটার সাথে দুধ মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে যদি আপনি আপনার ত্বকে ব্যবহার করেন,তবে আপনার গায়ের রঙ হবে দুধে আলতা।

-শরীর ব্যাথা হলে দুধের মধ্যে হলুদ মিশিয়ে খেতে পারেন।জয়েন্টে ব্যথা হলে হলুদের পেষ্ট তৈরি করে প্রলেপ দিতে পারেন।

হলুদকে আমরা সবাই সাধারণ দৃষ্টিতে দেখি।কিন্তু এই সাধারণ হলুদেই যে এত গুণ লুকিয়ে আছে তা আমাদের জানতে হবে।হলুদের সঠিক ব্যবহারের মাধ্যমে আমরা আমাদের সৌন্দর্যকে করে তুলতে পারি আরো অপরূপ ও আকর্ষণীয়।

facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedin