স্যাঁতসেঁতে আবহাওয়ায় ত্বকের সমস্যায় করণীয়

|রূপ-কেয়ার ডেস্ক|

rupcare_skin at rain0

এখন আবহাওয়াটা একটু বিরক্তিকর, বর্ষার আগমন ঘটেছে আবার অস্বস্তিকর গরমও পিছু ছাড়েনি। বৃষ্টি হলে একটু ঠান্ডা আবার মাঝে মাঝে গরমের তীব্রতা। বৃষ্টির স্যাঁতসেঁতে আবহাওয়ার কারণেও অস্বস্তিকর গরম অনুভূত হয়।তবে প্রচণ্ড গরম ও স্যাঁতসেঁতে আবহাওয়া দুটোই আমাদের ত্বকের জন্য ক্ষতিকর। এই পরিস্থিতিতে দেখা দেয় নানা সমস্যা। তাই আসুন জেনে নিই এইসব সমস্যার কিছু সমাধান।

অতিরিক্ত ঘাম
অতিরিক্ত ঘাম রোধে কিছু কালো এলাচ গুঁড়ো করে ফ্রিজে রেখে দিন। ১০টি তেজপাতা সারারাত ভিজিয়ে রেখে সকালে ওই পানির সঙ্গে এলাচের গুঁড়ো ও মুলতানি মাটি মিলিয়ে একটি প্যাক তৈরি করে গোসলের আগে ব্যবহার করুন, উপকার পাবেন। অতিরিক্ত ঘামের কারণে শরীর থেকে যে মিনারেল বের হয়ে যায় তা পূরণ করতে প্রতিদিন টকদই, তরমুজ, বেলের শরবত এবং পুদিনাপাতার শরবত খেতে পারেন।

হিট র‍্যাশ
অনেকের ত্বকে গরমে হিট র‍্যাশ বের হয়। হিট র‍্যাশ এড়াতে গোসলের আগে সারা শরীরে দই লাগাতে পারেন। দইয়ের সঙ্গে হলুদ বা নিমপাতা বাটা মিশিয়ে নিতে পারেন। এছাড়া খানিকটা লাউ থেঁতো করে এর সঙ্গে তুলসী পাতা এবং চালের গুঁড়ো মিলিয়ে মুখে ব্যবহার করুন। শুকিয়ে এলে ধুয়ে ফেলুন। র‍্যাশ হবে না এবং ত্বকের উজ্জ্বলতাও বাড়বে।

ঘামাচি
ঘামাচি গরমের সাধারণ সমস্যা। ঘামাচি কমাতে গোসলের আগে আটার সঙ্গে দই মিলিয়ে পেস্ট করে ব্যবহার করুন। শুকিয়ে গেলে হাত দিয়ে আলতো করে ঘষে তুলে ফেলুন। গোলাপজল দিয়ে তেজপাতা ব্লেন্ড করে লাগালেও উপকার পাবেন।

ব্রণ
গরমে ব্রণের মাত্রা বেড়ে যায়। ব্রণ এড়াতে সপ্তাহে দু-তিন বার চিরতার পানি এবং দু-তিনটি কাঁচা হলুদ ও আখের গুড় খেতে পারেন। সব সময় মুখ পরিষ্কার রাখা উচিত। নিমপাতা, হলুদ, চিরতা ও মুলতানি মাটি এক সঙ্গে মিলিয়ে পেস্ট বানিয়ে ব্যবহার করলেও উপকার পাবেন।

মাথার ত্বকের ঘাম ও খুশকি
এক চামচ কর্পূর এক কাপ পানিতে মিশিয়ে মাথার ত্বকে ব্যবহার করুন। তোয়ালে দিয়ে চেপে মুছে চিরুনি দিয়ে আঁচড়ে নিন। এতে আপনি ঘাম ও খুশকি উভয় থেকেই মুক্তি পাবেন। প্রতিসপ্তাহে একবার মেহেদি ব্যবহার করুন। গ্রীষ্মের পুরোটা সময় মেহেদি ব্যবহারে আপনার চুল হবে সুন্দর ও স্বাস্থ্যোজ্জ্বল। চুলে তেল ম্যাসাজ করে আধঘণ্টা পর টকদই ও হলুদ মিশিয়ে ব্যবহার করে ২০ মিনিট পরে ধুয়ে ফেলুন।

মাথার ত্বকে অ্যালার্জি
আপনার মাথার ত্বকে যদি চুলকানির সমস্যা থাকে তবে নিমপাতা, হলুদ ও চিরতা এক সঙ্গে বেটে মাথার ত্বকে কিছুক্ষণ লাগিয়ে রেখে ধুয়ে ফেলুন।

শুষ্ক ও রুক্ষ চুল
গ্রীষ্মে চুল খুবই শুষ্ক ও রুক্ষ হয়ে যায়। এর প্রতিকার করতে সপ্তাহে তিনবার চুলে তেল ম্যাসাজ করে সামান্য ক্ষারযুক্ত শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

লক্ষ্য রাখবেন:
গরমের মেকআপে অয়েল ফ্রি কসমেটিক্স ব্যবহার করুন।
সানস্ক্রিন ক্রিমের সুফল পেতে ক্রিমের সঙ্গে ফাউন্ডেশন মিশিয়ে ব্যবহার করুন।
গরমে ত্বক সুন্দর ও মসৃণ রাখার প্রথম পরামর্শ হলো ডিপ ক্লিনজিং ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন।
রোদে অবশ্যই ছাতা ও সানগ্লাস ব্যবহার করুন।
প্রচুর পানি পান করুন, যাতে ত্বকের আর্দ্রতা বজায় থাকে।

facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedin