‘১২ বছর পর বলছি, আমরা কিন্তু ভালো আছি’ – দীপা খন্দকার

image-42389-1527412678

বিবাহিত জীবনের ১২ বছর পার করলেন শাহেদ আলী ও দীপা খন্দকার দম্পতি। ২৭ মে এক যুগ পেরিয়েছে এই দুই তারকার যুগল জীবন। একটি নাটকে অভিনয় করতে গিয়ে সুজনের কণ্ঠে ‘পৃথিবীতে প্রেম বলে কিছু নেই’ গানটি শোনেন। সে গান শুনেই সুজনের প্রতি দীপার ভালো লাগা তৈরি হয়। পরবর্তীতে নির্মাতা গিয়াসউদ্দিন সেলিমের মধ্যস্থতায় তারা দুজন বিয়ের পিঁড়িতে বসেন। দীপা-শাহেদ দুজনই তাদের বিয়ের ঘটক গিয়াসউদ্দিন সেলিমকে ‘উকিল বাবা’র মর্যাদা দিয়েছিলেন। ২০০৬ সালের ২৭ মে বিয়ে হয় তাদের।

১২তম বিবাহবার্ষিকীতে রোববার দীপা খন্দকার ফেসবুকে লিখেন, ‘ফুলের বিছানায় শুয়ে বসে জীবন পার করতে পারিনি, কেউই পারে না। খুব সহজ ছিল না আমাদের এই পথচলা। অনেক কঠিন, মাঝে মাঝে মনে হতো অসম্ভব। তারপর ভেবেছি আমাকে পারতেই হবে। আজ ১২ বছর পার করলাম।’

তিনি আরও বলেন, “আমার বিয়ের পর দিন অনেক সাংবাদিক ভাই-বোন জানতে চেয়েছিল, ‘বিয়ের পর কেমন আছেন? আপনি কি সুখী?’ আমি তাদের বলতাম, ‘এখনই কীভাবে বলবো, সুখী কিনা। ৫ বছর যাক তারপর বলি।’ ১২ বছর পর বলছি ভাই বোনেরা, ‘আমরা কিন্ত ভালো আছি। আলহামদুলিল্লাহ। এভাবে বাকি জীবন থাকতে চাই, দোয়া করবেন।”